‘বেঁচে আছেন কিম, আছেন সুস্থ’

উত্তর কোরিয়ার নেতা কিম জং উনকে ঘিরে যেন সৃষ্টি হয়েছে এক ধোঁয়াশা। তার মৃত্যু নিয়ে নিয়ে একের পর এক গুজবে ক্লান্ত বিশ্ববাসী। তবে কিমকে নিয়ে গুঞ্জনের মাঝেই রবিবার (২৬ এপ্রিল) দক্ষিণ কোরিয়ার পররাষ্ট্র নীতি বিষয়ক উপদেষ্টা চাং ইন মুন দাবি করেছেন, কিম জন উন ‘বেঁচে আছেন এবং ভালো আছেন’। স্বাস্থ্য নিয়ে সন্দেহ-সংশয় বাড়তে থাকলেও তা উড়িয়ে দিচ্ছে প্রতিবেশী দক্ষিণ কোরিয়া।

উপদেষ্টা মুন চুং-ইন বলেন, ‘আমাদের সরকারের অবস্থান দৃঢ়। কিম জং-উন সুস্থ ও ভালো আছেন। গত ১৩ এপ্রিল থেকে তিনি ওনসন এলাকায় অবস্থান করছেন। কোনো সন্দেহজনক চলাচল চোখে পড়েনি।’ রাষ্ট্রীয় অনুষ্ঠানে কিমের অনুপস্থিতি, তিনি কোথায় আছেন, কেমন আছেন- এসব বিষয়ে সুস্পষ্ট কোনও তথ্য না থাকায় নানা জল্পনা কল্পনা ডালপালা ছড়িয়ে পড়ে। এরপর জাপানি সংবাদমাধ্যমের দাবি করে, হার্টের অপারেশনের পর তিনি ‘অচেতন’ হয়ে গেছেন। হংকংয়ের একটি টেলিভিশনের দাবি করে, তিনি আসলে মারাই গেছেন। এ নিয়ে উত্তর কোরিয়া থেকে কিছু না জানানোর ফলে কোন রিপোর্ট সত্য আর কোনটা মিথ্যা বা গুজব তা যাচাই করা কঠিন হয়ে পড়ে। কিম উত্তর কোরিয়ায় তার অবকাশযাপন কেন্দ্রে আছেন জানিয়েছেন দক্ষিণ কোরিয়ার পররাষ্ট্র নীতি বিষয়ক এই উপদেষ্টা। তিনি আরও জানান, কিমের হলিডে রিসোর্টের কাছে একটি ব্যক্তিগত রেলস্টেশন আছে। সেখানে তার ট্রেন দেখা গেছে।

ওয়াশিংটনভিত্তিক দল ‘প্রজেক্ট ৩৮’-এর স্যাটেলাইট উত্তর কোরিয়ার ওপর নজরদারি করে থাকে। তারা আগেই জানিয়েছে, ২১ থেকে ২৩ এপ্রিল পর্যন্ত কিম জং উনের পরিবারের ব্যবহারের জন্য সংরক্ষিত অবকাশযাপন কেন্দ্র ওনসন কম্পাউন্ডের স্টেশনে তার ব্যক্তিগত ট্রেনটি দেখা যায়। তবে ২৫০ মিটার দীর্ঘ ওই ট্রেনে উত্তর কোরিয়ার সর্বোচ্চ নেতা কিম ছিলেন কিনা তা নিশ্চিত করতে পারেনি তারা।

Check Also

গরমকালের বউ, মাত্র ২০ দিনের জন্য

মুসলিম পুরুষদের শর্ত সাপেক্ষে চার স্ত্রী গ্রহণের বিধান রয়েছে ইসলাম ধর্মে। তাই বলে কেবল গ্রীষ্মকালের …