মিরপুর নয় ঢাকায় সবচেয়ে বেশি করোনা আক্রান্ত যে এলাকা

দেশে করোনাক্রান্ত এলাকাগুলোর মধ্যে প্রধান কেন্দ্র রাজধানী ঢাকা। গতকাল শনিবার (১৮ এপ্রিল) পর্যন্ত দেশে মোট ২১৪৪ জন করোনা রোগী শনাক্ত হয়েছে, যার ৮৭৭ জনই ঢাকার বাসিন্দা, যা মোট আক্রান্তদের ৩২ শতাংশ। রোগতত্ত্ব, রোগ নিয়ন্ত্রণ ও গবেষণা ইনস্টিটিউটের তথ্য অনুযায়ী, ১৮ এপ্রিল পর্যন্ত মোহাম্মদপুরে আক্রান্ত হয়েছেন ৩৪ জন। দ্বিতীয় সর্বোচ্চ ২৮ জন আক্রান্ত হয়েছেন ওয়ারীর বাসিন্দারা।

পরিসংখ্যানে দেখা যায়, তারপরে রয়েছে মিটফোর্ডে ২৬ জন, লালবাগে ২৩ জন আর যাত্রাবাড়ীতে ২৫ জন। পুরান ঢাকা এলাকায় সব মিলিয়ে আক্রান্ত হয়েছেন ৮৭ জন। এছাড়া উত্তরায় আক্রান্ত হয়েছেন ২৩ জন, ধানমন্ডিতে ২১ জন। ঢাকা বিভাগের অন্যান্য জেলায় শনাক্তের সংখ্যা ৭৬৩। ঢাকার পর এই বিভাগের অন্যান্য জেলার মধ্যে শনাক্তের সংখ্যা সবচেয়ে বেশি নারায়ণগঞ্জে। এরপর গাজীপুর ও নরসিংদীতে। এই তিন জেলায় শনাক্তের সংখ্যা যথাক্রমে ৩০৯, ১৬১ ও ৯৩ জন। একক মহল্লা হিসেবে হিসেবে সবচেয়ে বেশি করোনা আক্রান্ত হয়েছে মিরপুরের টোলারবাগে। সেখানে কোভিড-১৯ শনাক্ত হয়েছেন ১৯ জন। আরেকটি এলাকা শাঁখারীবাজারে আক্রান্ত ১০ জন।

বাসাবোতে আক্রান্ত হয়েছেন ১৭ জন। ঢাকার তেজগাঁওয়ে করোনা শনাক্ত হয়েছে ১৬ জনের। বংশাল, গেন্ডারিয়া ও হাজারীবাগেও শনাক্ত হয়েছেন ১৬জন করে রোগী। গুলশানে শনাক্ত হয়েছেন ১৪ জন। রাজারবাগ, আজিমপুর ও মিরপুর-১১ প্রতিটা এলাকায় ১৩ জন করে রোগী শনাক্ত হয়েছেন। চকবাজার ও মহাখালীতে ১২ জন বাসিন্দা করোনা আক্রান্ত হয়েছেন। মগবাজার, বাবুবাজার ও মিরপুর-১২ তে ১১ জন করে আক্রান্ত হয়েছেন। ঢাকার গ্রীনরোডে শনাক্ত হয়েছেন ১০ জন। সরকারি হিসাবে দেশে শনিবার পর্যন্ত মোট করোনা আক্রান্ত হলেন ২ হাজার ১৪৪ জন। আর করোনা আক্রান্ত হয়ে মৃত্যু হয়েছে ৮৪ জনের। আক্রান্ত হওয়ার পর সুস্থ হয়েছেন ৬৬ জন।

Check Also

বরিশালের বিভিন্ন সড়কে ‘Sorry’ লেখা নিয়ে রহস্য!

বরিশাল নগরীর বেশ কয়েকটি সড়কে রঙ দিয়ে ইংরেজিতে ‘Sorry’ শব্দ লেখা নিয়ে ইতোমধ্যে রহস্যের সৃষ্টি …