Advertisements

সব নষ্টের মূল কে? এতদিনে জানালেন মিথিলা, উত্তপ্ত সিনেপাড়া

image-156137-1588069671 সব নষ্টের মূল কে? এতদিনে জানালেন মিথিলা, উত্তপ্ত সিনেপাড়া

শোবিজ অঙনের সবচেয়ে আলোচিত নাম রাফিয়াত রশিদ মিথিলা। বিশেষ করে গত কয়েক মাস। তাহসানের সাথে ঘর বাঁধার পর দারুণ এক রসায়ন। হুট করে সেই ঘর ভেঙে যাওয়া। নতুন করে মিথিলার স্বপ্ন সাজানো। এসব নিয়ে নিয়মিতই খবরের শিরোনাম হয়েছে।

আজ যখন সারা বিশ্ব কাঁপছে করোনায়। যখন পাড়া মহল্লায় চলছে করোনা প্রতিরোধের মাইকিং। কিংবা সামাজিক দূরত্ব মেনে প্রাণঘাতী ভাইরাসের কবল থেকে বাঁচার নানাবিধ নির্দেশনা। তখনই আবার আলোচনার টেবিলে মিথিলা।

বাংলাদেশের একজন জনপ্রিয় কণ্ঠশিল্পী, গীতিকার, সুরকার, অভিনেত্রী এবং মডেল মিথিলা। কর্মজীবন শুরু করেন একজন পেশাদার উন্নয়নকর্মী হিসাবে।

শিক্ষাজীবন শেষে তিনি ব্র্যাকে একজন গবেষক হিসাবে যোগদান করেন। এরপর তিনি আমেরিকায় গিয়ে মিনিয়াপোলিস পাবলিক স্কুল ডিসট্রিক্টে কাজ করেন।

এক বছর সেখানে থাকার পর তিনি বাংলাদেশে ফিরে এসে স্কলাস্টিকায় হাই স্কুলে কাজ শুরু করেন। তিনি নর্দান বিশ্ববিদ্যালয়ে লেকচারার হিসেবেও কর্মরত ছিলেন। অভিনয়েও সমানভাবে কুড়িয়েছেন সুনাম।

Advertisements

২০০৬ সালের দিকে সঙ্গীতশিল্পী তাহসানের সঙ্গে বিয়ে হয় মিথিলার। বিয়ের পরে উভয়ে যৌথভাবে বের করেছেন একাধিক গানের এ্যালবাম। ২০১৩ সালে এই দম্পতির ঘর আলো করে আসে একমাত্র কন্যাসন্তান আইরা।

কিন্তু হঠাৎ গণ্ডগোল। এক নিমেষের ঝড়ে সব স্বপ্ন ভেঙে ছারখার। ২০১৭ সালের জুলাইয়ে তাদের বিবাহ বিচ্ছেদ ঘটে। পরে ২০১৯ সালের ৬ ডিসেম্বর ভারতের অন্যতম জনপ্রিয় চলচ্চিত্র নির্মাতা সৃজিত মুখার্জিকে বিয়ে করেন মিথিলা।

এ দিকে তাহসানও তার নিজের মতো করে সময় কাটাচ্ছেন। নতুন করে ভাবছেন! এরিমাঝে অবশ্য তাহসানকে অনেকটাই ভুলে গেছেন মিথিলা। তাকে নিয়ে কোনো রকম মন্তব্যও করেন না তিনি।

তবে এর মাঝে বেরিয়ে এলো নতুন কিছু। নিজের ইনস্টাগ্রাম মঙ্গলবার (২৮ এপ্রিল) একটি ছবি আপলোড করেন মিথিলা। যার ক্যাপশনে আবার লিখেছেন, ‘প্রিয় ফুল? বেলীফুল, প্রিয় গয়না… কানের দুল, প্রিয় মুহূর্ত…তার কাঁধে আমার এলোচুল…কিন্তু সব নষ্টের মূল ওই…বেলীফুল! গন্ধে মনকে উদাস করায়, অকারণে তাকে মনে যে করায় উস্কে দেয়, ভুল ভাবায়! হতচ্ছাড়া বেলীফুল!’

তার এমন আবেগী বার্তার পরই সোশ্যাল মিডিয়ায় বইছে আলোচনার ঝড়। এই ফুলকে দিয়ে তিনি কাকে বুঝাতে চেয়েছেন? নাকি ওই চরিত্রের জায়গায় রূপক অর্থে ব্যবহার করেছেন বেলীফুল। এমন প্রশ্ন এখন ঘুরপাক খাচ্ছে মিথিলাভক্তদের মাথায়।

Advertisements

Check Also

আপ্লুত সুনেরা, জানালেন নিজের স্বর্গের ঠিকানা

সুনেরাহ বিনতে কামাল একদম নিজের জগতে যেখানে মন খুলে প্রাণ যা ইচ্ছে বলা যায়, করা …