২৪ ঘণ্টায় আক্রান্তের সংখ্যা বেড়ে ৩৭৭২ জন

গত ২৪ ঘণ্টায় নতুন করে করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন ৩৯০ জন। এ নিয়ে মোট আক্রান্তের সংখ্যা দাঁড়ালো ৩৭৭২ জন। এছাড়া বাংলাদেশে গেল ২৪ ঘণ্টায় করোনা ভাইরাস প্রাণ কেড়ে নিয়েছে আরও ১০ জনের। এ নিয়ে দেশে মোট মৃতের সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ১২০ জন। করোনা ভাইরাস নিয়ে স্বাস্থ্য অধিদফতরের নিয়মিত অনলাইন ব্রিফিংয়ে বুধবার (২২ এপ্রিল) দুপুরে রাজধানী মহাখালীর ইনফরমেশন ম্যানেজমেন্ট সিস্টেম (এমআইএস) বিভাগের মিলনায়তনে করোনা ভাইরাস সংক্রান্ত অনলাইন স্বাস্থ্য বুলেটিনে স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের অতিরিক্ত মহাপরিচালক (প্রশাসন) অধ্যাপক ডা. নাসিমা সুলতানা এ তথ্য জানান। গত ২৪ ঘণ্টায় টেস্ট করানো হয়েছে ৩০৯৬টি।

বিশ্ব পরিস্থিতি: টানা বৃদ্ধির পর গত দুই দিনে করোনায় আক্রান্তের সংখ্যা কিছুটা কমেছে। কিন্তু গত ২৪ ঘণ্টায় আক্রান্তের সংখ্যা কমলেও বেড়েছে মৃতের সংখ্যা। গত ২৪ ঘণ্টায় করোনাভাইরাসে একদিনেই মারা গেছে ৭ হাজারের বেশি মানুষ। সারা বিশ্বে সাড়ে ২৫ লাখ ছাড়িয়েছে আক্রান্তের সংখ্যা।

ওয়ার্ল্ডোসিটারের তথ্য অনুয়ায়ী, বিশ্বজুড়ে আক্রান্তের সংখ্যা ২৫ লাখ ৫৬ হাজার ৯০৯ জন। গত ২৪ ঘণ্টায় আক্রান্ত হয়েছে ৭৫ হাজার ২৪৫ জন। এ পর্যন্ত সুস্থ হয়েছে ৬ লাখ ৯০ হাজার ২৬৫ জন। বর্তমানে বিশ্বে ১৬ লাখ ৮৮ হাজার ৬৫০ জনের দেহে ভাইরাসটি শনাক্ত হয়েছে। তাদের মধ্যে ১৬ লাখ ৩১ হাজার ৪০০ জন চিকিৎসাধীন, যাদের অবস্থা স্থিতিশীল। আর ৫৭ হাজার ২৫০ জনের অবস্থা গুরুতর, যাদের অধিকাংশই আইসিইউতে রয়েছেন।

বর্তমানে সবচেয়ে খারাপ অবস্থা যুক্তরাষ্ট্রে। দেশটিতে মোট আক্রান্ত ৮ লাখ ১৮ হাজার ৭৪৪, মারা গেছে ৪৫ হাজার ৩১৮ জন। এখন পর্যন্ত করোনায় সর্বোচ্চ মৃত্যু এবং আক্রান্ত যুক্তরাষ্ট্রে। এছাড়া স্পেনে আক্রান্ত ২ লাখ ৪ হাজার ১৭৮, মারা গেছে ২১ হাজার ২৮২ জন। ইতালিতে আক্রান্ত ১ লাখ ৮৩ হাজার ৯৫৭, মারা গেছে ২৪ হাজার ৬৪৮ জন। ফ্রান্সে আক্রান্ত ১ লাখ ৫৮ হাজার ৫০, মারা গেছে ২০ হাজার ৭৯৬ জন। জার্মানিতে আক্রান্ত ১ লাখ ৪৮ হাজার ৪৫৩, মারা গেছে ৫ হাজার ৮৬ জন। যুক্তরাজ্যে আক্রান্ত ১ লাখ ২৯ হাজার ৪৪, মারা গেছে ১৭ হাজার ৩৩৭ জন। তুরস্কে আক্রান্ত ৯৫ হাজার ৫৯১, মারা গেছে ২ হাজার ২৫৯ জন। ইরানে আক্রান্ত ৮৪ হাজার ৮০২, মারা গেছে ৫ হাজার ২৯৭ জন। চীনে আক্রান্ত ৮২ হাজার ৭৮৮, মারা গেছে ৪ হাজার ৬৩২ জন। ব্রাজিলে আক্রান্ত ৪৩ হাজার ৭৯, মারা গেছে ২ হাজার ৭৪১ জন। বেলজিয়ামে আক্রান্ত ৪০ হাজার ৯৫৬, মারা গেছে ৫ হাজার ৯৯৮ জন। কানাডাতে আক্রান্ত ৩৮ হাজার ৪২২, মারা গেছে ১ হাজার ৮৩৪ জন। নেদারল্যান্ডসে আক্রান্ত ৩৪ হাজার ১৩৪, মারা গেছে ৩ হাজার ৯১৬ জন।

Check Also

বরিশালের বিভিন্ন সড়কে ‘Sorry’ লেখা নিয়ে রহস্য!

বরিশাল নগরীর বেশ কয়েকটি সড়কে রঙ দিয়ে ইংরেজিতে ‘Sorry’ শব্দ লেখা নিয়ে ইতোমধ্যে রহস্যের সৃষ্টি …