Advertisements

অক্ষয়ের সঙ্গে কারিশমার বিয়ে পাকা, তখনই বাধা হয়ে দাঁড়ান একজন!

image-158596-1589554737 অক্ষয়ের সঙ্গে কারিশমার বিয়ে পাকা, তখনই বাধা হয়ে দাঁড়ান একজন!

কারিশমা কাপুর। নামের মধ্যেই ক্যারিশ্মা লুকিয়ে রয়েছে তাঁর। কাপুর পরিবারের আদরের লোলো। জীবনে তাঁর প্রেম এসেছে বহু বার। কখনও অজয় দেবগণ, কখনও অভিষেক বচ্চন আবার কখনও অক্ষয় খান্নার সঙ্গে তাঁর প্রেমের খবরে এক সময় সরগরম থেকেছে পেজ-থ্রির হেডলাইন। সুপারস্টার বিনোদ খান্নার ছেলে অক্ষয় খান্নার সঙ্গে তাঁর প্রেম এতটাই মাখোমাখো ছিল যে, জল গড়িয়েছিল প্রায় ছাদনাতলা পর্যন্ত। কিন্তু শেষ মুহূর্তে সব ওলটপালট হয়ে যায়। ইন্ডাস্ট্রির গুঞ্জন , এর পিছনে মূল কলকাঠি নেড়েছিলেন কপূর পরিবারেরই এক প্রভাবশালী ব্যক্তি। কে তিনি?

নব্বইয়ের দশকের শেষ দিক। করিশ্মা তখন সুপারহিট নায়িকা। কিছু দিন আগেই অজয় দেবগণের সঙ্গে তাঁর প্রেম ভেঙেছে। অজয়ের মন তখন মজেছে কাজলে। করিশ্মা তখন একেবারে সিঙ্গল। ঠিক এই সময়েই তাঁর আলাপ হয় অক্ষয় খান্নার সঙ্গে।

মিষ্টি হাসির অক্ষয়কে দেখে অচিরেই প্রেমে পড়ে যান করিশ্মা। সাড়া দেন অক্ষয়ও। বলিপাড়াতেও তাঁদের প্রেমের গসিপ আগুনের মতো ছড়িয়ে পড়তে থাকে।

আগুনে ঘি পড়ে যখন এক ম্যাগাজিনের ফ্রন্ট পেজ শুটে ঘনিষ্ঠ অবস্থায় প্রথম বার ক্যামেরার সামনে ধরা দেন করিশ্মা এবং অক্ষয়। ইন্ডাস্ট্রি বুঝে নেয় প্রেম করছেন তাঁরা। দুই পরিবারেও গোটা ব্যাপারটি জানাজানি হয়।

শোনা যায়, করিশ্মার বাবা রণধীর কপূর প্রথম বিনোদ খান্নাকে চার হাত এক হওয়ার প্রস্তাব দেন। বিনোদও খুশি মনে সব কিছু মেনে নেন। ঘরের বউ হিসাবে করিশ্মাকে পছন্দ ছিল বিনোদেরও।

Advertisements

সব প্রায় ঠিকঠাক। বিয়ের কথাও পাকা। ঠিক এমন সময়েই কপূর পরিবারের মধ্যে থেকেই ওঠে আপত্তি। করিশ্মা এবং অক্ষয়ের বিয়ে যাতে না হয় সে জন্য উঠে পড়ে লাগেন তিনি। কে সেই ব্যক্তি।

শুনলে অবাক হবেন, তিনি আর কেউ নন, কপূর পরিবারের পুত্রবধু এবং করিশ্মা-করিনার মা ববিতা। কিন্তু কেন?

ববিতার রাজি না হওয়ার পিছনে যুক্তি ছিল বড়ই অদ্ভুত। সে সময় সাফল্যের দিক দিয়ে করিশ্মা বেশ ভাল জায়গাতেই ছিলেন। অন্য দিকে অক্ষয় যাত্রা শুরু করলেও সে ভাবে নাম করতে পারেননি। চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছেন পায়ের নীচে মাটি শক্ত করার। অপেক্ষাকৃত কম সফল এক জনের হাতে মেয়েকে তুলে দিতে নারাজ ছিলেন ববিতা।

মায়ের সিদ্ধান্তে কোনও দিনই না বলেননি করিশ্মা। তাই বুকে পাথর রেখে নিজের জীবন থেকে সরিয়ে দিয়েছিলেন অক্ষয়কে। আর অক্ষয়?

তিনিও এই ব্যাপারে আজ অবধি মুখ খোলেননি । মেনে নিয়েছিলেন করিশ্মার সিদ্ধান্ত। সরে গিয়েছিলেন তাঁর জীবন থেকে।

মায়ের জন্য বিয়ের সিদ্ধান্ত থেকে সরে আসার ঘটনা আরও রয়েছে করিশ্মার জীবনে। অভিষেক বচ্চনের সঙ্গে তাঁর বাগদানের কথা তো কারও অজানা নয়। কিন্তু সেখানেও একই কারণ দেখিয়ে মেয়েকে বচ্চন পরিবারের পুত্রবধূ হতে দেননি ববিতা।

মায়ের পছন্দ করা ছেলের গলাতেই মালা দিয়েছিলেন করিশ্মা। কিন্তু সে বিয়েও সুখের হয়নি। ২০১৬ সালে স্বামী সঞ্জয় কপূরের সঙ্গে বিচ্ছেদ হয়ে যায় তাঁর। বর্তমানে দুই সন্তানকে নিয়ে আলাদাই থাকেন করিশ্মা।

অন্য দিনে তাঁর প্রাক্তন প্রেমিকদের মধ্যে অজয় বিয়ে করেছেন কাজলকে। তাঁদের ভরা সংসার। ঐশ্বর্যা, আরাধ্যাকে নিয়ে অভিষেক বচ্চনও সুখে দিন কাটাচ্ছেন। কিন্তু অক্ষয়! আজও তিনি অবিবাহিত।

সূত্র-আনন্দবাজার।

Advertisements

Check Also

এই রিকশাওয়ালার দায়িত্ব নিতে চান মিষ্টি জান্নাত

মঙ্গলবার ভোরের আলো ফোটার আগেই নিজের ভেরিফায়েড ফেসবুক পেজে এক বৃদ্ধ রিকশাওয়ালার দুটি ছবি পোস্ট …