ঈদের শরবত ‘মলিদা’

ছেলেবেলায় গ্রামের ঈদটাই অন্যরকম ছিল। সকালে ঘুম ভাঙতো মায়ের চুমুতে। এরপর জোর করে বিছানা থেকে তুলে দিতেন। চোখে মুখে ঘুম নিয়ে সোজা পুকুর ঘাটে চলে যেতাম। ঈদের দিন সাতসকালে দলবেঁধে গোসল করা ছিল রেওয়াজ। এরপর ঘরে ফিরে নতুন জামা গায়ে দিতেই মা হাতে ধরিয়ে দিতেন এক গ্লাস ‘মলিদা’। ঈদের সকালে মলিদা না হলে যেনো ঈদের দিনই শুরু হত না।

ঈদের দিন খুব ভোরে ঘুম থেকে উঠে মায়ের মলিদা তৈরি উপকরণ যোগাতে হত। আগের রাতেই তিনি আতপ চাল পানিতে ভিজিয়ে রাখতেন। কোড়ানি দিয়ে নারকেল কুড়িয়ে রাখতেন। এরপর আতল চাল পাটায় বেটে তার সঙ্গে নারকেলের দুধ আর আদার রস আর আখের গুড় দিয়ে তৈরি হত এই শরবত। এটি পান করতে যেমন সুস্বাদু তেমনি সারা মাসের রোজার ক্লান্তি দূর করতেও সহায়ক ছিল এটি।

ঈদের দিনের অতিথি অ্যাপায়ন পর্ব শুরু হত মলিদা দিয়ে।

এখনকার অনেকেই বুঝি মলিদার নামও জানেন না। যদিও আমার গ্রামেই এখন আর কেউ মলিদার শরবত তৈরি করে না। হারিয়ে যেতে বসেছে জনপ্রিয় এই পানীয়। এক সময়ের জনপ্রিয় এই শরবতের রেসিপি পাঠকদের জন্য দেয়া হলো।

উপকরণ

আতপ চাল

কোড়ানো নারকেল

আদা বাটা

আখের গুড়

প্রণালি

নরম না হওয়া পর্যন্ত আতপ চাল ভিজিয়ে রাখুন। এরপর শিল পাটায় চাল মিহি করে বেটে নিন। শিল পাটা না থাকলে ব্লেন্ডারে ভালো ভাবে ব্লেন্ড করে নিন। এরপর কোড়ানো নারকেল এবং আদা বেটে নিন। হযে গেলে চালের গুড়ার সঙ্গে নারকেলের দুধ, আদার রস এবং প্রয়োজনমত গুড় মিশিয়ে পরিবেশন করুন। চাইলে বরফ কুচি দিয়ে পরিবেশন করতে পারেন।

Check Also

চিকেন খাবসা তৈরির রেসিপি জেনে নিন

অ্যারাবিয়ান রেসিপি চিকেন খাবসা। এটি আমাদের দেশেও জনপ্রিয়তা লাভ করেছে দ্রুত। অনেকটা বিরিয়ানির মতোই এটি …