Advertisements

ঋষি কাপুরকে নিয়ে স্ত্রীর বিদায়ী স্ট্যাটাস

image-156802-1588447388 ঋষি কাপুরকে নিয়ে স্ত্রীর বিদায়ী স্ট্যাটাস

প্রিয় মানুষকে চিরবিদায় জানানো খুবই বেদনার। সেই মানুষটি যদি হয় ভালোবাসা, জীবনসঙ্গী ও সুখ-দুঃখের সাথী; তাহলে সেই বেদনা যেন বেড়ে দ্বিগুণ হয়ে যায়। কিন্তু মানুষ মরণশীল, তাই একদিন না একদিন সবাইকে এই পৃথিবীর মায়া ছেড়ে চিরবিদায় নিতে হয়।

ক্যান্সারের সঙ্গে লড়াই করে গত ৩০ এপ্রিল না ফেরার দেশে পাড়ি দিয়েছেন বলিউডের বর্ষীয়ান অভিনেতা ঋষি কাপুর। স্বামীর মৃত্যুর দু’দিন পর ইনস্টাগ্রামে ‘কার্জ’খ্যাত অভিনেতার একটি পুরনো ছবি শেয়ার করেন নীতু। ছবিতে দেখা যায়, ঋষির হাতে পানীয় আর মুখে উজ্জ্বল হাসি। সবসময় হাসিখুশি থাকা এই প্রাণোচ্ছ্বল জীবনসঙ্গীর স্মৃতিচারণ করে কাতর হয়ে আছেন নীতু। জীবনের সবটুকু জুড়ে ঋষিকে ঘিরেই তার সব গল্প। কিন্তু ৬৭ বছর বয়সে এই অভিনেতার মৃত্যু যবনিকা টেনেছে জীবনের গল্পে। তাই ছবিটির ক্যাপশনে নীতু লিখেছেন, ‘আমাদের গল্প শেষ হলো’। ছোট এক বাক্যে জীবনের সবচেয়ে বড় কথাটি প্রকাশ করলেন রণবীর কাপুরের মা।

Advertisements

১৯৭৪ সালে ‘জেহরিলা ইনসাল’ ছবিতে প্রথমবার জুটি বেঁধেছিলেন ঋষি কাপুর ও নীতু সিং। সেই থেকে শুরু তাদের ভালোবাসার গল্প। এরপর দু’জনে একসঙ্গে কাজ করেছেন ১২টি ছবিতে। এ তালিকায় উল্লেখযোগ্য ‘কাভি কাভি’, ‘অমর আকবর অ্যান্থনি’, ‘দুসরা আদমি’, ‘খেল খেল মে’ ও ‘ঝুটা কাহি কা’।

প্রায় ছয় বছর মন দেওয়া-নেওয়ার পর ১৯৮০ সালে বিয়ের বন্ধনে জড়ান ঋষি-নীতু। বলিউডের এ প্রজন্মের তারকা রণবীর কাপুর তাদের ছেলে। তার বোন ঋদ্ধিমা কাপুর সাহানি পেশায় ফ্যাশন ডিজাইনার।

বৃহস্পতিবার (৩০ এপ্রিল) মুম্বাইয়ের একটি হাসপাতালে মারা যান বলিউডের প্রখ্যাত অভিনেতা ঋষি কাপুর। দু’বছর আগেই তার শরীরে ক্যান্সার বাসা বাঁধে। দীর্ঘদিন নিউইয়র্কে চিকিৎসা নিয়ে গত বছরে ফেরেন দেশে। বৃহস্পতিবার বিকেলেই ঋষি কাপুরের অন্ত্যেষ্টিক্রিয়া সম্পন্ন হয়। তার সৎকারে পরিবারের সদস্যদের পাশাপাশি উপস্থিত ছিলেন আলিয়া ভাট, অয়ণ মুখার্জি, অভিষেক বচ্চন, কারিনা কাপুর, সাইফ আলী খান প্রমুখ।

ঋষি কাপুরের মৃত্যুর পর শোকে কাতর তারকাখচিত কাপুর পরিবার। এই উজ্জ্বল নক্ষত্রের পতনে বড় শূন্যতা তৈরি হলো বলিউডে।

Advertisements

Check Also

আপ্লুত সুনেরা, জানালেন নিজের স্বর্গের ঠিকানা

সুনেরাহ বিনতে কামাল একদম নিজের জগতে যেখানে মন খুলে প্রাণ যা ইচ্ছে বলা যায়, করা …