এই গরমে চুলের যত্ন নেবেন যেভাবে

গ্রীষ্মকালের এই সময়ে সূর্যের প্রচণ্ড খরতাপে জীবন ওষ্ঠাগত হয়ে ওঠে। অসহ্য গরমের মধ্যেও দৈনন্দিন কাজের জন্য নিয়মিত বাইরে বের হতেই হয়। আর গরমের এই সময়টাতে রোদের তীব্রতা সরাসরি প্রভাব পড়ে চুলে।

এই গরমে চুলের জন্য প্রয়োজন বিশেষ যত্নের। কারণ, প্রখর রোদে চুল ঘেমে গেলে চুলের গোড়ায় চুলকানি ও চুল টানার কারণে গোড়া নরম হয়ে চুল পড়তে থাকে। এ ছাড়া গরমে ঘাম ও বাতাসের ধুলাবালির কারণে চুল রুক্ষ হয়ে যায়। এর ফলে চুল হয়ে পড়ে প্রাণহীন ও অনুজ্জ্বল।

গরমে চুল পরিষ্কার রাখতে একদিন পরপর শ্যাম্পু করা উচিত। মনে রাখবেন, ভেজা চুলে বেশি ময়লা জমে, তাই শ্যাম্পু করে চুল না শুকিয়ে বাইরে না যাওয়াটাই ভালো। চুলের গোড়া পরিষ্কার রাখতে ঘরে তৈরি হারবাল যেকোনো প্যাক ব্যবহার করা যেতে পারে। এতে চুল পড়া সমস্যা দূর হবে এবং চুলের উজ্জ্বল ভাব বজায় থাকবে।

গরমে মাথা ঠাণ্ডা রাখতে সাহায্য করবে অ্যালোভেরা। অ্যালোভেরার রস, মেথি গুঁড়া ও ত্রিফলা (আমলকী, হরিতকি ও বহেরা ভেজানো পানি) একসঙ্গে মিশিয়ে প্যাক তৈরি করে চুলে লাগিয়ে কিছুক্ষণ অপেক্ষা করে পরিষ্কার করে ফেলুন। এতে চুল পড়া কমতে সাহায্য করবে এবং চুলের স্বাস্থ্য ভালো থাকবে।

রোদে পোড়া লালচে চুলের জন্য কলা ও আমলকীর প্যাক ব্যবহার করা ভালো। এই প্যাক একই সঙ্গে চুল নরম করবে এবং রোদে পুড়ে লালচে হয়ে যাওয়া থেকে বাঁচাবে।

গরমে চুলের পরিচর্যার জন্য ব্যবহার করা যেতে পারে নারকেলের দুধ। এর ব্যবহার মাথায় রক্ত চলাচল বাড়ায়। এ ছাড়া এটি ভিটামিন ই ও ফ্যাটের দ্বারা সমৃদ্ধ, যা ক্ষয় হয়ে যাওয়া চুলের পরিচর্যা করে ও ভেতর থেকে চুলকে মজবুত রাখে।

তৈলাক্ত চুলে পাকা কলা চটকে এর সঙ্গে টক দই মিশিয়ে চুলে লাগানো যেতে পারে। এতে চুল অনেক ঝরঝরে হয়ে যাবে এবং তেল চিটচিটে ভাব দূর হয়ে যাবে।

গরমে চুলে রাসায়নিক উপাদান ব্যবহার না করাই ভালো। প্রাকৃতিকভাবে চুলের যত্ন করার চেষ্টা করলে এই গরমে চুল থাকবে সুস্থ ও ঝলমলে।

Check Also

নতুন চুল গজাবে ঘরোয়া প্যাকে

চুল কমে যাচ্ছে ক্রমাগত পড়তে পড়তে? পেঁয়াজ, ক্যাস্টর অয়েলের পাশাপাশি বেশ কিছু প্রাকৃতিক উপাদান আপনাকে …