করোনাযোদ্ধাদের জন্য পিপিই বানিয়ে ভাইরাল ৯ বছরের আফিয়া

করোনাভাইরাসের বিরুদ্ধে লড়াইয়ে সম্মুখযোদ্ধা স্বাস্থ্যকর্মীদের জন্য নিজ হাতে পার্সোনাল প্রোটেকটিভ ইকুইপমেন্ট (পিপিই) বানিয়ে প্রশংসায় ভাসছে মালয়েশিয়ার ৯ বছরের স্কুলছাত্রী নূর আফিয়া।

তার এ উদ্যোগের কথা সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ছড়িয়ে পড়লে খুব দ্রুত ভাইরাল হয়ে যায়। মহামারী করোনার বিরুদ্ধে লড়াইয়ে সবাই নিজেদের মতো করে অবদান রাখার চেষ্টা করছেন, এটিই তার উৎকৃষ্ট নজির বলে মন্তব্য করেছেন নেটিজেনরা। খবর আলজাজিরার।

অনেকেই বলেছেন, মাত্র ৯ বছর বয়সে এক স্কুলছাত্রী যা করেছে, তা অনেকের কাছে অনুপ্রেরণা হতে পারে। এই বয়সেই চিকিৎসাকর্মীদের জন্য দিনে চারটি করে পার্সোনাল প্রোটেকটিভ ইকুইপমেন্ট (পিপিই) বানাচ্ছে সে।

নূর আফিয়া স্থানীয় হাসপাতালের কর্মীদের জন্য পিপিই বানাচ্ছে। সেই ছবিও প্রকাশ করতেই ভাইরাল হয়েছে সোশ্যাল মিডিয়াতে।

দক্ষিণ মালয়েশিয়ায় নেগিরি সেমবিলানের কুয়ালা পিলা শহরের বাসিন্দা আফিয়া। করোনার প্রকোপের খবর দেখে এই বয়সেই সে বুঝতে পারে, প্রাণঘাতী এ ভাইরাসের বিরুদ্ধে লড়াইয়ে তারও কিছু করা উচিত। তাই সে মাকে বলে চিকিৎসক, নার্স, চিকিৎসাকর্মীদের জন্য নিজেই সেলাই করে বানিয়ে দেবে পিপিই।

আফিয়া মাত্র পাঁচ বছর বয়সেই সেলাই করতে শিখে গিয়েছিল। এখন স্কুল বন্ধ, অনলাইনে ক্লাস হচ্ছে। সেই ক্লাস ও খেলার সময়ের বাইরে সারা দিনে চারটি করে পিপিই বানিয়ে ফেলতে পারে সে। সেই পিপিইগুলো তুলে দেয়া হচ্ছে স্থানীয় হাসপাতাল কর্তৃপক্ষের হাতে।

ইতিমধ্যে প্রায় ১৩০টি পিপিই তৈরি করে স্থানীয় দুই হাসপাতালে দিয়েছে সে। এখনও প্রায় ৬০টি পিপিই তৈরি হচ্ছে। সেগুলো তুলে দেয়া হবে চিকিৎসাকর্মীদের জন্য।

তার এই কাজ শুধু মালয়েশিয়াতেই নয়, সোশ্যাল মিডিয়ার বদৌলতে সারা দুনিয়ায় নেটিজেনদের প্রচুর প্রশংসা কুড়িয়েছে।

Check Also

গরমকালের বউ, মাত্র ২০ দিনের জন্য

মুসলিম পুরুষদের শর্ত সাপেক্ষে চার স্ত্রী গ্রহণের বিধান রয়েছে ইসলাম ধর্মে। তাই বলে কেবল গ্রীষ্মকালের …