মাস্ক জীবাণুমুক্ত করার ৩ উপায়

করোনাভাইরাস থেকে নিরাপদে থাকতে ঘর থেকে বের হলেই মাস্ক ব্যবহার জরুরি বলে জানিয়েছেন বিশেষষজ্ঞরা। তবে মাস্ক শুধু ব্যবহার করলেই হবে না তা জীবাণুমুক্তও করতে হবে।
মাস্ক প্রতিবার ব্যবহারের আগে জীবাণুমুক্ত করতে হবে। বাইরে থেকে ঘরে ফেরার পর সাবান দিয়ে হাত ধুতে হবে ২০ সেকেন্ড সময় নিয়ে। তার পর মাস্কও ধুয়ে জীবাণুমুক্ত করতে হবে।

ব্যবহারের জন্য কয়েকটি মাস্ক নিজেই বাড়িতে বানিয়ে নিতে পারেন। সেই মাস্কগুলো পরিষ্কারও করতে হবে।

তবে এখন প্রশ্ন হলো– ব্যবহার করা মাস্ক কীভাবে পরিষ্কার করে পুনরায় ব্যবহারযোগ্য করবেন।

সাধারণ মাস্ক জীবাণুমুক্ত করার বিষয়ে জানিয়েছে যুক্তরাষ্ট্রের ‘সেন্টার ফর ডিজিজ কন্ট্রোল অ্যান্ড প্রিভেনশন (সিডিসি)।

কীভাবে মাস্ক পরিষ্কার করবেন–

পাত্রে গরম পানিতে পরিষ্কার করুন

বড় একটি পাত্রে গরম পানিতে সাবান গুলে নিয়ে মাস্কগুলো ভিজিয়ে রাখতে হবে অন্তত পাঁচ মিনিট। পরে তা তুলে নিয়ে ভালোভাবে পরিষ্কার করে রোদে শুকাতে হবে।

ওয়াশিং মেশিনে পরিষ্কার করুন মাস্কগুলোকে একটি কাপড়ের ব্যাগে ঢুকিয়ে নিন। ব্যাগের মধ্যে রেখে পরিষ্কার করলে মাস্কের ‘ইলাস্টিক’ নষ্ট হবে না।

‘ওয়াশিং মেশিনে’ সাধারণ ‘লন্ড্রি ডিটারজেন্ট’ই ব্যবহার করে গরম পানি দিয়ে পরিষ্কার করতে হবে।

ওভেনে পরিষ্কার ব্যবহার করা মাস্ক যদি ‘ফ্লেমেবল’ বা দাহ্য না হয় ও সাধারণ কাপড়ের ফিতা থাকে, তবেই শুধু ওভেনে জীবাণুমুক্ত করা সম্ভব। ওভেনে ১৫৮ ডিগ্রি তাপমাত্রায় আধা ঘণ্টা গরম করলে জীবাণুমুক্ত হবে।

এ ছাড়া বৈদ্যুতিক ইস্ত্রিতে ‘মিডিয়াম’ বা মাঝারি তাপমাত্রায় আধা ঘণ্টা তাপ দিলেও জীবাণুমুক্ত হবে।

Check Also

যে কৌশলে ফ্রিজ ব্যবহারে বিদ্যুৎ বিল কমবে তরতরিয়ে!

গরম বাড়ার সঙ্গে সঙ্গে বাড়তে থাকে ফ্রিজ ব্যবহারও। অর্থাৎ গরমে ফ্রিজে একটু বেশি চাপ যায়। …