‘রাস্তায় গাড়ি থেকে নেমে ফল কিনেছিলেন, তারপরই করোনা পজিটিভ’


শনিবার (১৬ মে) নিজের ফেসবুকে এই সম্পর্কিত একটি স্ট্যাটাস দেন জনপ্রিয় টেলিভিশন উপস্থাপিকা, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের সাংবাদিকতা ও গণযোগাযোগ বিভাগের সহযোগী অধ্যাপক সামিয়া রহমান।

যেখানে তিনি উল্লেখ করেছেন তার এক আত্মীয় কীভাবে অল্পতে ভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন সে কথা। পাঠকদের জন্য স্ট্যাটাসটি হুবহু তুলে দেয়া হলো, ‘আমার চাচীর বোন কভিড ১৯ পজিটিভ হয়ে মারা গেলেন। বেচারার দোষ ছিল দীর্ঘ দেড়মাস লক ডাউনে থাকার পর, শুধু একদিন ছোট মেয়ের বাসায় যাবার পথে রাস্তায় গাড়ি থেকে নেমে ফল কিনেছিলেন। সাথে ছিল তার আর এক মেয়ে। তারপরই কভিড ১৯ পজিটিভ।’

‘মাত্র ৫ টা দিন যুদ্ধটা করতে পারলেন। তারপরই সব শেষ। তার মেয়েও এখন হাসপাতালের আইসিউতে।……. করোনা অবশ্যই ভয়াবহ রোগ এবং অবশ্যই কারো জন্য আশীর্বাদ নয়। যারা অন্য কথা বলেন, তারা রূপকথার গল্পের মতো আমাদের ভুলিয়ে রাখতে চান সবকিছু।’

Check Also

কলেজছাত্রীকে ধর্ষণের পর আত্মহত্যা বলে চালানোর অভিযোগ

নওগাঁর পত্নীতলায় অনুমোদনহীন নজিপুর ইসলামিয়া ক্লিনিক এন্ড ডিজিটাল ডায়াগনস্টিক সেন্টার রিসিপসনিস্ট পদে কর্মরত তানিয়া আকতার …