লকডাউনেই বিয়ে করলেন অভিনেতা

বিয়ের কথা ছিল এপ্রিলে, কিন্তু লকডাউনে পুরো প্ল্যান বাতিল করতে হয়। তাই বলে দু’জনে আলাদা থাকা যায়? ঘটনাটা লকডাউনেই ঘটিয়ে ফেললেন তেলুগু অভিনেতা নিখিল সিদ্ধার্থ আর তার চিকিৎসক বান্ধবী পল্লবী বর্মা।

প্রশ্ন উঠেছে, পল্লবী নিজে চিকিৎসক হয়েও এই কাজ করলেন কেন?

‘ইন্ডিয়া টুডে’র খবর, বর-কনের বাড়িতে এপ্রিলের পর থেকেই বিয়ে সেরে ফেলার জন্য প্রচণ্ড চাপ দেওয়া হচ্ছিল। ফলে বাড়িতে খুব কম সংখ্যক লোক নিয়ে বিয়ে সম্পন্ন হয়।

লকডাউনের রীতি মেনে বিয়েতে যারাই উপস্থিত ছিলেন তারা মাস্ক পরে আসেন। ছিল স্যানিটাইজারের ব্যবস্থাও। নিখিল আর পল্লবীর সম্পর্ক প্রায় দু’বছরের। এ বছরের ফেব্রুয়ারিতেই তাদের এনগেজমেন্ট হয়ে যায়।

কিছু দিন আগেই ইনস্টাগ্রামে নিখিল পল্লবীকে লিখেছিলেন,খুব শিগগিরি আমাদের দেখা হবে… কিন্তু এখন দূর থেকে ভালোবাসা দিলাম।

২০০৩ সালে তেলুগু ভাষায় ‘সম্ভ্রম’ সিনেমার মাধ্যমে চলচ্চিত্রে পা রাখেন নিখিল। ২০০৭ সালে মুক্তিপ্রাপ্ত তেলুগু ছবি ‘হ্যাপি ডেজ’তে অভিনয় করে সুনাম কুড়োন তিনি।

এ পর্যন্ত নিখিল অভিনীত ১৮টি সিনেমা মুক্তি পেয়েছে। বর্তমানে নিখিলের হাতে দু’টি তেলুগু সিনেমার কাজ রয়েছে।

Check Also

সুশান্ত সিং মামলার আসামি সেই রাকুল প্রীতের ছবি ভাইরাল

সুশান্ত সিং রাজপুতের মৃত্যুর পরেই বলিউড তোলপাড় ড্রাগস মামলা নিয়ে ৷ আর সেই মামলায় নাম …