লকডাউনে কাজ নেই, হতাশায় আত্মহত্যা করলেন অভিনেত্রী


নভেল করোনাভাইরাস এক আতঙ্কের নাম।সর্বত্রই ছড়িয়ে পড়ছে এ ভাইরাস। ঘাতক ভাইরাসটি যেন মানছে না কিছুই। কিন্তু করোনার এই সময়ে বিনোদন জগতের তারকাসহ সবাই ঘরবন্দী। আর লকডাউনে শুটিং বন্ধ। হাতে কাজ নেই। চোখের সামনে শেষ হয়ে যাচ্ছে স্বপ্ন। সহ্য করতে না পেরে আত্মঘাতী হলেন হিন্দি ধারাবহিকের চেনা মুখ প্রেক্ষা মেহতা। বয়স হয়েছিল মাত্র পঁচিশ বছর। বিভিন্ন সংবাদমাধ্যম থেকে পাওয়া তথ্য অনুযায়ী, সোমবার রাত্রে ইন্দোরে নিজের বাড়িতে সিলিং ফ্যানে ফাঁস লাগিয়ে আত্মহত্যা করেন প্রেক্ষা। মঙ্গলবার (২৬ মে) সকালে তার বাবা ঝুলন্ত অবস্থায় দেখতে পান মেয়েকে। হাসপাতালে নিয়ে গেলে মৃত ঘোষণা করা হয় তাকে।

প্রেক্ষার ঘনিষ্ঠ সূত্র থেকে জানা গিয়েছে কাজ না থাকায় দীর্ঘদিন ধরেই হতাশায় ভুগছিলেন তিনি। মৃত্যুর আগে ইনস্টাগ্রাম স্টোরিতে লেখেন, সবসে বুড়া হোতা হ্যায় স্বপ্ন কো মর জানা।

শুধুই কি হতাশা নাকি অন্য কারণও রয়েছে? হিরানগর থানার ভারপ্রাপ্ত অফিসার রাজিব ভাদোরিয়া এ দিন সংবাদমাধ্যমকে জানান, লকডাউন শুরু হওযার পর থেকে ইন্দোরে বাড়িতেই ছিলেন প্রেক্ষা। কেন আত্মহত্যা করলেন তিনি, সে বিষয়ে অনুসন্ধান চলছে বলেও জানিয়েছে ‍পুলিশ।

Check Also

‘এ কেমন খেলা’য় মেতেছেন ইরফান-তিশা?

সাইকো থ্রিলার গল্পের একটি নাটকে জুটি বেঁধেছেন ছোট পর্দার অভিনেতা ইরফান সাজ্জাদ ও তাসনুভা তিশা। …