লকডাউনে লম্বা ঘুম, ক্ষতি না লাভ?

করোনাভাইরাসের প্রাদুর্ভাবে বিশ্বব্যাপী নেমে এসেছে স্থবিরতা। দীর্ঘদিন ধরে লকডাউন চলমান থাকায় কর্মজীবী অনেকেই কর্মহীন সময় পার করছেন। টেলিভিশন বা মুঠোফোনের স্ক্রিনে তাকিয়ে থাকতে থাকতে ক্লান্ত হয়ে বেশিরভাগ সময়ই কাটছে ঘুমিয়ে।

আবার একটি কথাও প্রচলিত রয়েছে, সুস্থ থাকার জন্য পর্যাপ্ত ঘুমাতে হবে। কিন্তু এই পর্যাপ্ত মানে একজন মানুষের সুস্থ থাকার জন্য সাত থেকে আট ঘণ্টা ঘুমই যথেষ্ট বলে মনে করেন চিকিৎসকেরা।

ভারতীয় সংবাদমাধ্যম এই সময়ের বরাত দিয়ে ইউএনবির প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, অতিরিক্ত ঘুম শরীরের জন্য ক্ষতির কারণ হতে পারে। আর কী কী ক্ষতি হতে পারে জেনে নিন—

১. সম্প্রতি এক গবেষণায় দেখা গেছে, যাঁরা ৯ ঘণ্টা বা তারও বেশি সময় ঘুমান, তাঁদের মধ্যে বিষণ্ণতার ঝুঁকি বেড়ে যায়।

২. বেশি সময়ের ঘুম মস্তিষ্কের কাজ করার ক্ষমতা হ্রাস করে।

৩. কানাডার কুইবেক বিশ্ববিদ্যালয়ের এক গবেষণায় বলা হয়েছে, রাতে আট ঘণ্টার বেশি ঘুমের কারণে রক্তের গ্লুকোজ নিয়ন্ত্রণের ক্ষমতা হারায় শরীর। এতে টাইপ-২ ডায়াবেটিসের শঙ্কা বেড়ে যায়।

৪. আট ঘণ্টার বেশি সময় নিয়মিত ঘুমালে হৃদযন্ত্রের সমস্যা দেখা দিতে পারে।

৫. ওজন বাড়ার অন্যতম কারণ অতিরিক্ত ঘুম।

প্রসঙ্গত, গত ২৬ মার্চ থেকে দেশের সব সরকারি-বেসরকারি অফিসসমূহে সাধারণ ছুটি ঘোষণা করেছে সরকার। তবে জরুরি প্রয়োজনে সেবা দেওয়ার কাজে নিয়োজিত অফিসগুলো খোলা রয়েছে।

Check Also

শুধু লবণ পানিতে গার্গল, করোনা গায়েব!

প্রতিদিনই বিশ্বজুড়ে বাড়ছে প্রাণঘাতী করোনায় আক্রান্ত ও মৃতের সংখ্যা। করোনার সংক্রমণ কমার কোনো লক্ষণই নেই। …