৭০০ টাকা ভাড়ার জন্য রাতে বের করে দিলেন বাড়িওয়ালা

মৌলভীবাজারের শ্রীমঙ্গল উপজেলার পৌর শহরের শাপলাবাগ এলাকায় ৭০০ টাকা মাসিক ভাড়ায় দুটি শিশু সন্তান নিয়ে একটি বাড়িতে থাকতেন এক নারী। করোনাভাইরাসের কারণে উপার্জন বন্ধ হয়ে যাওয়ায় গত মাসের ভাড়া দিতে পারেননি তিনি। এদিকে চলতি মাসেরও অর্ধেক পার হতে চলেছে, কিন্তু এখনও গত ভাড়া পরিশোধ না করতে পারায় দুই শিশুসহ বাড়ি থেকে বের করে দেওয়া হয় ওই নারীকে।

কিন্তু রাত কাটনোর মতো আশ্রয় কোথায়ও খুঁজে না পেয়ে শ্রীমঙ্গল থানার উল্টোদিকের একটি মার্কেটের সামনের রাস্তায় খোলা আকাশের নিচে অভুক্ত দুই শিশুকে ঘুম পাড়িয়ে বসেছিলেন ওই নারী।

এ সময় ওই রাস্তা দিয়ে যাচ্ছিলেন শ্রীমঙ্গল প্রেসক্লাবের সাধারণ সম্পাদক এম ইদ্রিস আলী ও তরুণ সমাজকর্মী শেখ সারোয়ার জাহান জুয়েল। তারা দেখতে পান, খোলা আকাশের নিচে দুই শিশু সন্তানকে ঘুম পাড়িয়ে মা জেগে রয়েছেন, আর মশার কামড়ে ঘুমের মধ্যেই ছটফট করছে শিশু দুটি।

বুধবার (১৩ মে) মধ্যরাতে মৌলভীবাজারের শ্রীমঙ্গল উপজেলার পৌর শহরের শাপলাবাগ আবাসিক এলাকার এ ঘটনা ঘটে। এর আগে সন্ধ্যায় পরিবারটিকে বাড়ি থেকে বের করে দেওয়া হয়।

এই ঘটনার একটি ছবি তুলে ফেসবুকে পোস্ট করে একটি স্ট্যটাস দেন ওই দুই ব্যক্তি। তাদের স্ট্যাটাসটি মুহূর্তে ভাইরাল হয়। বিষয়টি নজরে আসে শ্রীমঙ্গল ও কমলগঞ্জ সার্কেলের সিনিয়র সহকারী পুলিশ সুপার আশরাফুজ্জামানের।

এএসপির নির্দেশে থানা পুলিশ তাদেরকে উদ্ধার করে খাওয়ানোর পর ভোর রাত চারটার দিকে সিএনজি অটোরিক্সাতে ওই পরিবারটকে নিয়ে হাজির হন তাদের ভাড়া বাড়িতে। এ সময় বাড়ির মালিককে ডেকে তোলেন এবং এই ঘটনার পুনরাবৃত্তির বিষয়ে কঠোর সতর্কবার্তা দেন পুলিশ কর্মকর্তা আশরাফুজ্জামান।

মো.আশরাফুজ্জামান বলেন, দেশের এমন সংকটের সময় উনি যা করেছেন সেটি দুঃখজনক। বাসার মালিককে সতর্ক করে দিয়েছি যেন এ ধরনের ঘটনার পুনরাবৃত্তি না ঘটে। পুলিশের পক্ষ থেকে চাল,ডাল, নিত্যপ্রয়োজনীয় খাদ্যসামগ্রী ও নগদ টাকা দেওয়া ছাড়াও তাদের দুই মাসের বাসা ভাড়া পরিশোধ করা হয়েছে। শিশুদের মাকে বলেছি, খাবার না থাকলে থানায় যোগাযোগ করতে।

Check Also

নারায়ণগঞ্জে ট্রেন থামিয়ে ঝালমুড়ি কিনলেন চালক (ভিডিও)

মাঝপথে ট্রেন থামিয়ে ঝালমুড়ি কিনছেন নারায়ণগঞ্জের এক ট্রেনচালক। তার এ ঝালমুড়ি কেনার ভিডিও এখন সামাজিক …