জুতা থেকেও করোনাভাইরাস ছড়াতে পারে

বর্তমানে সারা দেশ জুড়ে তাণ্ডব চালাচ্ছে প্রাণঘাতি করোনাভাইরাস। আর এই করোনাভাইরাস থেকে বাঁচার জন্য আমরা বিভিন্নভাবে নিজেদের সুরক্ষার দিকে খেয়াল রাখছি। কিন্তু আমাদের এটাও জেনে নেয়া দরকার, করোনাভাইরাস কোন জিনিসের ওপর কতক্ষণ সজীব থাকে।

মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের ন্যাশনাল ইনস্টিটিউট অব হেলথ এর পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে, করোনাভাইরাস কার্ডবোর্ডের ওপর প্রায় ২৪ ঘণ্টা সজীব থাকে। এছাড়াও স্টিল ও প্লাস্টিকের ওপর তিনদিন পর্যন্ত সজীব থাকতে পারে এই ভাইরাস। কিন্তু একটি গবেষণায় দেখা গিয়েছে, প্রায় ৫ দিন পর্যন্ত জুতার মধ্যেও সজীব থাকতে পারে এই মরণ ভাইরাস। খবর জিনিউজ।

বেশিরভাগ জুতাই চামড়া, রাবার ও প্লাস্টিকের তৈরি হয়। এমনিতেই তার মধ্যে অনেক ধরনের জীবাণু থাকে। জীবাণু রোগ বিশেষজ্ঞ এই প্রসঙ্গে জানিয়েছেন, জুতায় ব্যবহৃত উপকরণগুলোকে বেশ কয়েকবার গবেষণা করার পর জানা গেছে, এই ভাইরাস পাঁচ দিন বা তার বেশি সময় সজীব থাকতে পারে জুতায়।

এছাড়াও অন্যান্য বিশেষজ্ঞরা জানিয়েছেন, যেকোনও জায়গা থেকেই জুতার মধ্যে চলে আসতে পারে এই ভাইরাস। কিছু বিশেষজ্ঞদের মতে বাইরের ব্যাকটেরিয়া ও ভাইরাস খুব সহজেই জুতার মধ্যে আটকে যায়, যা অজান্তেই বাড়ি পর্যন্ত চলে আসে। তাই বাইরে থেকে ঘরে ঢোকার আগে সব সময় জুতার বাইরে খুলে ঘরে ঢোকা উচিত। এতে সংক্রমণ ছড়ানোর সম্ভাবনা কমতে পারে।

কিছু নিয়ম আছে যেগুলো নিয়মিত মেনে চললে দূরে থাকা যাবে এই ভাইরাস থেকে।

১. বাইরে থেকে এসে ঘরে ঢোকার আগে জুতা খুলে নিতে হবে।

২. এরপর বাইরে পরা জুতা ভালো করে সাবান ও পানি দিয়ে ধুয়ে নিতে হবে।

৩. চামড়ার জুতা যেহেতু ধোয়া যায় না, তাই পরিষ্কার কাপড় দিয়ে সেটি ভালো করে মুছে নিতে হবে।

৪. যেসব জায়গায় প্রতিদিন বাইরে থেকে এসে জুতা খোলা হয়, সেই সমস্ত জায়গায় ভালো করে স্যানিটাইজ করতে পারলে ভালো।

Check Also

ঢাকা থেকে বাড়ি ফিরে ঘুম, দুপুরে ৯তলা থেকে লাফ!

কুমিল্লায় জান্নাতুল হাসিন (২৪) নামের এক তরুণীর মৃত্যু হয়েছে। তাকে হত্যা করা হয়েছে নাকি তিনি …