কী কারণে ‘মীরাক্কেল’ থেকে বাদ পড়লেন শ্রীলেখা?

‘মীরাক্কেল’। ভারতীয় বাংলা টেলিভিশনের অন্যতম জনপ্রিয় রিয়্যালিটি শো। দীর্ঘদিন ধরেই এ কমেডি শো’র বিচারক পদে রয়েছেন টালিউডের জনপ্রিয় অভিনেত্রী শ্রীলেখা মিত্র। এর সঙ্গে আরো দু’জন বাঙালি প্রতিভাও রয়েছেন একজন হলেন রজতাভ দত্ত, অন্যজন পরাণ বন্দ্যোপাধ্যায়।

শোনা যাচ্ছে, ফের টিভির পর্দায় ফিরতে চলেছে মীরাক্কেল। এর মধ্যেই গত সোমবার একটি পোস্ট করে রীতিমতো বোমা ফাটিয়েছেন টালিপাড়ার স্পষ্টবাদী অভিনেত্রী শ্রীলেখা।

শ্রীলেখা জানান, বাংলা টেলিভিশনের সবচেয়ে জনপ্রিয় কমেডি শো মীরাক্কেল শুরু হতে চলেছে আমাকে ছাড়া। সত্যি কথা বলার মূল্য এভাবেই দিতে হয় আমাকে। আসলে কাউকে তেল না দেওয়া, কিংবা ব্র্যান্ডের প্রতি একনিষ্ঠ থাকাই হল এ মূল্য। ধন্যবাদ সংশ্লিষ্ট চ্যানেল কর্তৃপক্ষকে। আপনি ঠিকই বলেছেন আমি নিজেক খামতিগুলো অকপটে মেনে নিচ্ছি। যারা আমাকে পছন্দ করেন না তারা এবার আনন্দে পার্টি করুন।

এখানেই থামেননি অভিনেত্রী, আরো একটি পোস্টেও শ্রীলেখা জানিয়েছেন, এই জিনিসগুলোই প্রমাণ করে দেয় নেপোটিজম কেমন ভাবে রন্ধ্রে রন্ধ্রে রয়েছে। আমি যা বলেছিলাম ঠিকই বলেছিলাম। যদিও এটা কোনো নতুন ঘটনা নয়, এই ঘটনা আকছার ঘটছে আমার সঙ্গে। বরং অন্য কিছু হলে খানিক চমকে যেতাম। আর হ্যাঁ মহিলা তোমার সেদিনের ছোট প্রশ্নের জবাব আমি এড়িয়ে গিয়েছিলাম। তুমি একদম পারফেক্ট আমার খামতিতে। সেটা এখন পুরোপুরি স্পষ্ট এবং কোনোভাবেই তা এড়িয়ে যাওয়া সম্ভব নয়। আমি সেটা ভদ্রতার সঙ্গে মেনে নিচ্ছি। তবে এটা জেনে রাখো, আমি সিস্টেমের সঙ্গে লড়াই করে ব্যর্থ হলেও মাথানত করব না।

যদিও এক দশকের বেশি সময় ধরে মীরাক্কেলের বিচারকের আসনে রয়েছেন শ্রীলেখা মিত্র। তবে শ্রীলেখার জায়গায় কাকে দেখা যাবে তা নিয়েই জল্পনা চলছে। জানা গেছে, নুসরাত জাহান, স্বস্তিকা মুখোপাধ্যায় কিংবা পাওলি দামকে বিচারকের আসনে দেখা যেতে পারে। কথাবার্তা চলছে তবে এখনই কিছু চূড়ান্ত হয়নি।

শ্রীলেখার এই পোস্ট নিয়েও চ্যানেল কর্তৃপক্ষ এখনো মুখ খোলেননি। কবে থেকেই বা মীরাক্কেলের নতুন সিজন শুরু হবে তা নিয়ে কিছু জানা যায়নি। তবে শ্রীলেখার অনুপস্থিতি ভীষণভাবে মিস করবেন দর্শকরা তা এখনই টের পাওয়া যাচ্ছে। সকল ভক্তরাই শ্রীলেখা এই পোস্টে হতাশ।

Check Also

স্পা-তে গিয়ে গ্রেফতার অভিনেতা, যা বললেন তার স্ত্রী

‘রাস্তায় এখন ওকে দেখলে সবাই অভিনেতা নয়, অপরাধী হিসেবে দেখবে। ইন্ডাস্ট্রিতে ওর ভবিষ্যৎ অন্ধকার করে …