ওখানে মসজিদ নয়, সাইবোর্ড ছিল: মুনমুন (ভিডিও)

ফেসবুকসহ সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ছড়িয়ে পড়েছে টাঙ্গাইলের সখীপুরে বাজার মসজিদের পাশে চিত্রনায়িকা মুনমুনের একটি নাচের ভিডিও। এই ভিডিওটি নিয়ে অনেকেই ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন।

এ বিষয়ে চিত্রনায়িকা মুনমুন গণমাধ্যমকে বলেন, সত্য কথা হলো ওখানে কোনো মসজিদ ছিল না। মসজিদের যে সাইনবোর্ড টানানো ছিল, সেটা আসলে একটা মসজিদ নদী ভাঙনে বিলীণ হয়ে যায়। সেই মসজিদের সাইনবোর্ড এনে রাখা হয়েছে। দেখবেন সাইনবোর্ডটা একেবারে নতুন। আর মসজিদের কার্যক্রম ছিল না। স্থানীয়রাই এসব বলেছে। আর আমি এসব কথা জেনেছি, ঘটনার ভিডিও ভাইরাল হবার পর।

আর আমি কি অন্য ধর্মের লোক যে মসজিদের সামনে নাচবো? আমি কখনই কারো ধর্মীয় অনুভূতিতে সজ্ঞানে আঘাত হবে- এমন কাজ করবো না। আমি যদি জানতাম ওখানে মসজিদের রয়েছে তাহলে নাচতাম না কখনই। তারপরেও যদি আমার এই ঘটনায় কেউ আঘাত পেয়ে থাকেন তাহলে সকলের কাছে আমি ক্ষমা চাইছি। সেখানে মসজিদ রয়েছে আমি জানতাম না সত্যি।

জনপ্রিয় এই নায়িকা ঘটনার সূত্রপাত সম্পর্কে বলেন, আমি নৌকা ভ্রমণে গিয়েছিলাম টাঙ্গাইলের সখীপুরে। এলাকার গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গদের দাওয়াতে গিয়েছিলাম। আমাকে যারা দাওয়াত দিয়ে নিয়ে গেছেন তারা রিকুয়েষ্ট করার পর আমি অল্প একটু সময় নেচেছি।

তিনি বলেন, আমি দেখেছি ওই জায়গাটি পরিত্যক্ত এবং এলকাটি নদীগর্ভে তলিয়ে গেছে। সেই স্থানে মসজিদ রয়েছে নাকি মন্দির রয়েছে আমার জানার কথা নয়, যেহেতু আমি অতিথি।

সখীপুরের চেয়ারম্যানসহ এলাকার গণ্যমান্য ব্যক্তিরা সেখানে উপস্থিত ছিলেন উল্লেখ করে তিনি বলেন, তাহলে তারা কেন নিষেধ করেন নি?

তিনি আরও বলেন, আমি একজন জনপ্রিয় নায়িকা। আমি জেনে শুনে তো আর মসজিদের মত পবিত্র স্থানে নাচবো না। এই ভিডিও নিয়ে যারা মাতামাতি করছেন তাদেরকে বলবো এসব বন্ধ করুন।

 

Check Also

স্পা-তে গিয়ে গ্রেফতার অভিনেতা, যা বললেন তার স্ত্রী

‘রাস্তায় এখন ওকে দেখলে সবাই অভিনেতা নয়, অপরাধী হিসেবে দেখবে। ইন্ডাস্ট্রিতে ওর ভবিষ্যৎ অন্ধকার করে …