‘মাগো, কী বিভৎসতা’ সরব চলচ্চিত্র তারকারাও

নোয়াখালীর বেগমগঞ্জে গৃহবধূকে বিবস্ত্র করে নির্যাতনের ভিডিও ভাইরাল হওয়ায় দেশজুড়ে নিন্দা ও প্রতিবাদের ঝড় বইছে। এ ঘটনায় দুই মামলা করা হয়েছে। প্রতিবাদে শামিল হয়েছেন দেশের চলচ্চিত্র তারকারাও।

ঢাকাই চলচ্চিত্রের জনপ্রিয় অভিনেত্রী অরুণা বিশ্বাস। এ ঘটনার প্রতিবাদ জানিয়ে তিনি ফেসবুকে স্ট্যাটাস দিয়েছেন, ‘মাগো, কী বিভৎসতা! ধর্ষণ আবার ধর্ষণ, কী কুৎসিত! কবে থামবে?’

আরেকটি স্ট্যাটাসে অরুণা বিশ্বাস লিখেন, ‘এখন প্রত্যেকটি মেয়ের ত্রিশূল আর রামদা হাতে রাখার সময় এসেছে।’

চিত্রনায়িকা নিপুণ লিখেছেন, ‘মা আমি লজ্জিত, আমি বিক্ষুব্ধ, আমি বাকরুদ্ধ।’

চিত্রনায়ক জায়েদ খান লিখেছেন, ‘নোয়াখালীর ঘটনার তীব্র প্রতিবাদ জানাচ্ছি। এমন নরপশুদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি চাই। এ লজ্জা আমাদের সবার।’ জায়েদ খানের এই স্ট্যাটাসে মন্তব্য করেছেন আরেক জনপ্রিয় অভিনেত্রী শবনম পারভীন। তিনি লিখেছেন, ‘প্রতিবাদ জানাই এবং যোগ্য শাস্তি দাবি করছি এই ঘৃণ্য বর্বরোচিত হামলার জন্য।’

ধিক্কার জানিয়ে চিত্রনায়িকা জাকিয়া বারী মম লিখেছেন, ‘এই ধর্ষণের দেশ আর চাই না। মাননীয় এত ক্ষমতা দিয়ে কী হবে? দেশের নারী ধর্ষিত আর আমরা ধর্ষক! ধিক্কার।’

উল্লেখ্য, গত ২ সেপ্টেম্বর রাত ৯টার দিকে উপজেলার একলাশপুর ইউনিয়নের ৯ নম্বর ওয়ার্ডের খালপাড় এলাকার নূর ইসলাম মিয়ার বাড়িতে ওই গৃহবধূর বসতঘরে ঢুকে তার স্বামীকে পাশের কক্ষে বেঁধে রাখেন স্থানীয় বাদল ও তার সহযোগীরা। এরপর গৃহবধূকে ধর্ষণের চেষ্টা করেন তারা।

এ সময় গৃহবধূ বাধা দিলে তারা বিবস্ত্র করে বেধড়ক মারধর করে মোবাইলে ভিডিওচিত্র ধারণ করেন। নির্যাতনের ঘটনার ৩৩ দিন পর ৯ জনকে আসামি করে রোববার রাত ১টার দিকে ধর্ষণচেষ্টার অভিযোগে মামলা করেন নির্যাতিতা গৃহবধূ (৩৫)।

এ ঘটনায় মামলার প্রধান আসামি বাদল এবং দেলোয়ার বাহিনীর প্রধান দেলোয়ারসহ চারজনকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে।

Check Also

কিসের টানে অভিনয় ছাড়লেন কুসুম

নাটক এবং চলচ্চিত্র নিয়েই ছিল অভিনেত্রী কুসুম শিকদারের ব্যস্ততা। হঠাৎ করেই সেই ব্যস্ততা থেকে দূরে …