নজর কেড়েছে নোবেলের ‘অভিনয়’

বহুল সমালোচিত সংগীত শিল্পী মাইনুল আহসান নোবেল। কলকাতার সা রে গা মা পা সঙ্গীতানুষ্ঠান থেকেই তিনি ছিলেন সবার প্রিয়। তবে কারণে অকারণে বিতর্ককে নিত্যসঙ্গী করেছিলেন তিনি। আর কোনো কিছুর তোয়াক্কা না করে বিতর্কের এ তালিকা বেশ দীর্ঘ করেছেন তিনি।
নিজের ইউটিউব চ্যানেলে নোবেল প্রকাশ করেন তার প্রথম একক গান ‘তামাশা’। আর এই ‘তামাশা’ নিয়ে দারুণ তামাশা শুরু করেছিলেন তিনি। কিন্তু গানটি মুক্তির পর মুখ থুবড়ে পড়ে।

এবার নোবেল ‘অভিনয়’ নিয়ে আসছেন, বেশ কিছু দিন আগে তা নিজেই জানান তিনি। গত ১২ নভেম্বর গানটি মুক্তি পেয়েছে। কিন্তু এবারের চিত্রপট ভিন্ন। কারণ ‘তামাশা’ যতটা হতাশ করেছিল, ‘অভিনয়’ তা পুষিয়ে দিয়েছে। শ্রোতাদের গানটি বেশ মনে ধরেছে! আর তা দর্শক-শ্রোতারাই জানান দিয়েছেন। তিনদিনে গানটি প্রায় ১০ লাখ বার দেখা হয়েছে।

ইউটিউবে মন্তব্যের ঘর ঘুরেও দেখা যায়, ইতিবাচক ভাবনার কথাই প্রকাশ করছেন শ্রোতারা। এম ডি সাফিন নামে একজন লিখেছেন-‘আসছিলাম ডিসলাইক দেয়ার জন্য কিন্তু সেটা লাইকে পরিবর্তন হয়ে গেলো।’ শাওন নামে একজন লিখেছেন-‘বাঙালি তোমার কাছ থেকে এমন গানই আশা করেছিল। ধন্যবাদ তোমাকে নিজেকে হারিয়ে যেতে দাওনি।’ নীলা ইসলাম নামে একজন লিখেছেন-‘ভীষণ ভালো গান, ভীষণ মিষ্টি গলা, গানটা বারবার শুনেছি আরো কতবার শুনব জানা নেই। ভালো থেকো নোবেল।’ এমন অসংখ্য প্রশংসাসূচক মন্তব্য পাওয়া যায় ইউটিউব ও তার ফেসবুকে।

গানটির কথা লিখেছেন আহমেদ রিজভী, সুর ও কম্পোজিশন করেছেন আহম্মেদ হুমায়ূন। গানটি নিয়ে নির্মিত হয়েছে গল্পনির্ভর ভিডিও। এটি নির্মাণ করেছেন শাহরিয়ার পলক। এ গানচিত্রে উঠে এসেছে, একজন সংগীত তারকার অতীত-বর্তমান ও ভবিষ্যতের ব্যক্তিজীবন। সাউন্ডটেকের ব্যানারে তৈরি হয়েছে গানটি।

গত ২৩ আগস্ট নোবেলের ‘ও শ্রাবণ’ শিরোনামে গানটি টেস্ট টিউব নামে একটি ইউটিউব চ্যানেলে মুক্তি পায়। বিরহ ঘরানার এ গান রচনা করেছেন সুবেহ সপু। সুরও করেছেন তিনি। সংগীতায়োজন করেছেন আমজাদ হোসেন। এ গানও শ্রোতাদের বেশ প্রশংসা কুড়ায়।

Check Also

নাটকে কলকাতার অভিনেতাকে বিয়ে করলেন সাফা কবির!

কলকাতার জনপ্রিয় অভিনেতা ঋষি কৌশিক। বাংলাদেশেও রয়েছে তার বেশ জনপ্রিয়তা। নিজের নামের চাইতে স্টার জলসার …