নরম তুলতুলে সুজি ও খেজুর গুড় দিয়ে দুধ পুলি

ছবি: সুজি ও খেজুরের দিয়ে দুধ পুলি

শীতের পিঠা বাঙালীর ঐতিহ্য। আর ঐতিহ্য ধরে রাখতেই শীতে নানা রকম পিঠা পুলির আয়োজন করা হয়ে থাকে। শীতের পিঠার মধ্যে অন্যতম হলো দুধ পুলি পিঠা।

এই পিঠা খেতে যেমন সুস্বাদু তেমনই তৈরি করাো খুবই সহজ। চলুন তবে জেনে নেয়া যাক নরম তুলতুলে সুজি ও খেজুর গুড় দিয়ে দুধ পুলি তৈরির রেসিপিটি-

উপকরণ: ঘি এক টেবিল চামচ, নারকেল কোড়ানো এক কাপ, এলাচের গুঁড়া এক চা চামচ, গুড় দুই কাপ, গুঁড়ো দুধ তিন টেবিল চামচ, লবণ স্বাদ মতো, সুজি দেড় কাপ, লিকুইড দুধ দুই কেজি।

প্রণালী: প্রথমে দুধ পুলি পিঠার পুর তৈরি করে নিতে হবে। এজন্য একটি প্যানে এক টেবিল চামচ ঘি দিতে হবে। ঘি এর মধ্যে এক কাপ নারকেল ভেজে নিয়ে এক চা চামচ এলাচের গুঁড়া ও এক কাপ গুড় দিয়ে দিতে হবে। চুলার আঁচ খুবই কম রাখতে হবে। যাতে পুড়ে না যায়। আর দিতে হবে তিন টেবিল চামচ গুঁড়ো দুধ। পানি শুকিয়ে গেলেই নারকেলের পুর নামিয়ে নিতে হবে।

এবার দুধ পুলি পিঠার ডো তৈরি করতে হাড়িতে গরম পানি নিয়ে এর মধ্যে স্বাদ মতো লবণ দিয়ে পানি ফুটলে দেড় কাপ সুজি দিয়ে পাঁচ মিনিটের জন্য ঢেকে রাখতে হবে। পাঁচ মিনিট পর নেড়ে একটু গরম পানি দিয়ে আবার কিছু সময় ঢেকে রাখতে হবে। সুজি খুব ভালো করে সিদ্ধ করলে পিঠা ভাঙবে না। চুলার আঁচ কমিয়ে হালকা গরম থাকা অবস্থায় ডো তৈরি করে ভেজা কাপড় দিয়ে ঢেকে রাখুন।

এবার ডো দিয়ে রুটি বেলে নিতে হবে। রুটি খুব বেশি পুর বা মোটা করে বেলা যাবে না। রুটির উপর একটু করে পুর দিয়ে অপর পাশে চেপে লাগিয়ে দিতে হবে। এমনভাবে লাগাতে হবে যেন পুর বের হয়ে না যায়। পিঠা বানানো হলে ভেজা কাপড় দিয়ে ঢেকে রাখতে হবে যতক্ষণ দুধের মধ্যে দেয়া না হয়। এভাবে সবগুলো পিঠা বানিয়ে নিতে হবে।

এবার চার কাপ দুধ ফুটিয়ে দুধের মধ্যে পরিমাণ মতো গুড় দিতে হবে। এবার এর মধ্যে পিঠাগুলো দিয়ে দিতে হবে। পিঠা দেয়ার পর চুলার আঁচ খুবই কম রাখতে হবে। যাতে পিঠাগুলো সিদ্ধ হয়ে যায়। আরো এক কেজি দুধ জ্বাল করে আধা কেজি করে এর মধ্যে দিয়ে দিতে হবে। তবে খেতে আরো বেশি মজাদার ও সুস্বাদু হবে। এভাবে খুব সহজেই মজাদার সুজি ও খেজুরের দিয়ে দুধ পুলি পিঠা তৈরি করে নিতে পারেন।

Check Also

২টি উপকরণে মোজারেলা চিজ তৈরির রেসিপি

মোজারেলা চিজ অনেক রকম খাবার তৈরিতে ব্যবহার করা হয়। খাবারের স্বাদ অনেকটাই বাড়িয়ে দেয় এই …