শরীরের মেদ আর মুখের মেদ এক বিষয় না

শরীরে মেদ জমলে আমাদের চিন্তার কোনো শেষ থাকে না। সেই মেদ কমাতে হাঁটাহাঁটি, ব্যায়াম, ডায়েট- সবই চলে সমান তালে। তাতে না হয় শরীরের মেদ নিয়ন্ত্রণে আসলো। শরীরের বিভিন্ন মাসল শক্তিশালী হলে বডি পশ্চার যেমন পারফেক্ট হয়, ঠিক তেমনি মুখের ক্ষেত্রেও। শরীরের সাথে সাথে মুখেও অনেক মেদ থাকে। যা দেখতে মোটেও ভালো লাগেনা। কিন্তু মুখে জমে থাকা মেদ কমানো এতো সহজ নয়।

কারণ শরীরের মেদ আর মুখের মেদ এক বিষয় না। শরীরের মেদের সঙ্গে মুখের মেদ কখনো কমে না। আর মুখে মেদ জমলেও তা চেহারাটা দেখতেও খারাপ লাগে, মুখটা কেমন ফুলে থাকে। তাই শরীরের বাকি অংশের মতো মুখকেও ফিট রাখা দরকার।

একটু চেষ্টা করলেই মুখের চর্বি কমিয়ে ফেলতে পারেন এই উপায়ে:

গাল ফুলিয়ে

প্রথমে লম্বা দম নিয়ে মুখের মধ্যে বাতাস আটকে রাখতে হবে। এবার আটকে রাখা বাতাস ঠেলে দিন ডান গাল থেকে বাম গালে। মানে একবার এক গাল থেকে আরেক গালে। আপনি সারাদিনের যেকোনো সময়েই এই ব্যায়াম করতে পারেন। এতে আপনার গালের চর্বি কমবে।

চোয়ালের ব্যায়াম

এই ব্যায়ামটি গুরুত্বপূর্ণ। এজন্য মুখের মধ্যে কোনো কিছু চিবাচ্ছেন এমনভাবে চোয়াল নাড়ানোর মাধ্যমে ব্যায়াম শুরু করুন। কিছুক্ষণ চিবানোর পর যতটা সম্ভব বড় হা করে পাঁচ সেকেন্ড এমন করে রাখতে হবে। সেই সঙ্গে জিহ্বা নিচের দাঁতের পাটিতে ঠেকানো থাকতে হবে। এই ব্যায়ামটি পুরো দুইবার করতে হবে। চিকবোনস বা চোখ ও গালের মধ্যবর্তী হাড় এবং চোয়ালের দুপাশের হাড় স্পষ্ট করে তুলবে এই ব্যায়ামগুলো। অর্থাৎ চর্বি কমবে।

ঠোঁটের ব্যায়াম

প্রথমে মাথা স্বাভাবিক অবস্থায় রেখে নিচের ঠোঁট উপরের দিকে এবং চোয়ালের নিচের অংশ সামনে দিকে ঠেলে দিতে হবে। ১০ থেকে ১৫ সেকেন্ড এই অবস্থা ধরে রাখতে হবে। একটানা ১০ বার করতে হবে ব্যায়ামটি। এতে চেহারায় তারুণ্যভাব বাড়বে এবং মুখের পেশি সুগঠিত হবে। চর্বিও অনেকটা কমে যাবে।

থুতনি উঠানো

এটা বেশ সহজ ব্যায়াম। যখন সময় পাবেন, এই ব্যায়ামটি করে নিতে পারেন। এজন্য বসে থাকা অবস্থায় মাথা উঠিয়ে ছাদের দিকে তাকাতে হবে। এবার এই অবস্থান ঠিক রেখে হাঁসের মুখের মতো মুখ করতে হবে, অর্থাৎ ঠোঁট সামনে নিয়ে চুমু দেওয়ার মতো করতে হবে। ১০ সেকেন্ড মুখ এভাবে ধরে রাখতে হবে। একটানা ১০ বার ব্যায়ামটি করতে হবে। এই ব্যায়ামে চোয়ালের নিচের অংশের চর্বি কমবে।

ফু দেয়া

মেরুদণ্ড সোজা রেখে মাথা যতটা সম্ভব পেছনে হেলিয়ে দিয়ে ছাদের দিকে মুখ করতে হবে। এবার ঠোঁট সামনে বাড়িয়ে দিয়ে গোল করে ফু দিতে হবে ১০ সেকেন্ড ধরে। একটানা ১০ বার বায়ামটি করতে হবে। ব্যায়ামটি চোয়ালের নিচের অংশের এবং গালের চর্বি ঝরাবে।

এছাড়া চুইং গাম চাবানোর অভ্যাসও এক ধরনের মুখের ব্যায়াম। এই চুইং গাম চিবালে মুখের চর্বি কমে। আবার নিয়মিত ফেস ম্যাসাজ করলে মুখে রক্তসঞ্চালন ভালো হয় এবং মুখের চামড়া টানটান হয়।

Check Also

শীতে ঠোঁটের যত্নের খুঁটিনাটি

শীতের শুরুতেই শুষ্ক আবহাওয়ার কারণে ত্বক ও চুলের পাশাপাশি ঠোঁটও ফেটে যায়। শীত মানেই ঠোঁট …