Advertisements

যে ৫টি উপায়ে আদার ব্যবহার আপনার ত্বক ও চুল সুন্দর করবে

124001Capture যে ৫টি উপায়ে আদার ব্যবহার আপনার ত্বক ও চুল সুন্দর করবে

শীতকালে আমরা অনেক সময় স্কিন ও চুলের সমস্যায় ভুগি। আমাদের চারপাশে এমন অনেক কিছু আছে যার মাধ্যমে ত্বক ও চুল সুন্দর হয়। আপনি চাইলে আদার ব্যবহারের মাধ্যমেই আপনার চুল ও ত্বক সুন্দর করতে পারেন।

আদার স্বাদ বা চায়েই আদা ব্যবহৃত হয় না বরং ত্বক ও চুলের যত্নে আদার যাদুকরী ব্যবহার রয়েছে। আদায় যে অ্যান্টি অক্সিডেন্ট তা ত্বক ও চুল দুটোর জন্যই ভালো। এছাড়া হজমে সহায়তা করে আদা। মূল কথা আদা সুপারহিরোর দায়িত্ব পালন করে।

স্কিন টোন  সুন্দর করে:

আমরা স্কিনের টোন ‍উন্নত করার জন্য অনেক রকম ক্রিম ব্যবহার করে থাকি। তবে এক্ষেত্রে আপনি ক্রিমের ব্যবহার কমিয়ে আদার ব্যবহার শুরু করতে পারেন। আদা ফ্রি র‌্যাডিকেলগুলোর সাথে লড়াই করতে পারে এবং এতে করে আপনার ত্বক ও চুল ঝলমলে হয়ে ওঠে।

যেভাবে ব্যবহার করবেন:

কিছু আদা গুঁড়ো করে এতে লেবুর রস মিশিয়ে নিন। এই মিশ্রণটি আপনার মুখে লাগান, বিশেষত যে জায়গাগুলিতে কালো দাগ আছে।তারপর শুকিয়ে গেলে পানিতে ধুয়ে ফেলুন।আদা যখন লেবুর সংস্পর্শে আসে তা কোলাজেন উৎপাদন করে এতে করে দাগ দূর হয়। এছাড়া সূর্যের ক্ষতিকর রশ্মিতে স্কিনের যে ক্ষতি হয় তা দূর করে আদা।

চুল পড়া কমায় ও রুক্ষতা দূর করে:

যেমনটি আমরা আগেই উল্লেখ করেছি যে আদা পুষ্টিতে ভরপুর। আদায় যে খনিজ, ভিটামিন এবং ফ্যাটি অ্যাসিড রয়েছে তা চুলকে গোড়া থেকে শক্তিশালী করে এবং রক্ত চলাচল স্বাভাবিক রাখে।

যেভাবে ব্যবহার করবেন:

Advertisements

কিছুটা আদা টুকরা একটি ব্লেন্ডারে নিন এবং এর মধ্যে অ্যালোভেরার তিন থেকে চারটুকরা যোগ করুন। অ্যালোভেরায় রয়েছে প্রোটোলিটিক এনজাইম, যা আপনার চুলের কন্ডিশনার হিসাবে কাজ করে। দু’টি একসাথে মিশিয়ে নিন যতক্ষণ না মসৃণ পেস্ট তৈরি হয়। এই মিশ্রণটি আপনার সমস্ত চুল এবং মাথার ত্বকে প্রয়োগ করুন। এক ঘন্টা রেখে তারপর চুল ধুয়ে ফেলুন।

ত্বক সুন্দর করে:

আদা সত্যিই আপনাকে আপনার স্বপ্নের ত্বক পেতে সহায়তা করতে পারে। এটি আপনাকে কেবল স্বাস্থ্যকর এবং দ্যুতিময় ত্বকই দেয় না বরং চেহারায় বয়সের ছাপ পড়তে দেয় না।

যেভাবে ব্যবহার করবেন:

১ চামচ আদা রস নিন এবং ১ চা চামচ গোলাপজল, আধা চামচ মধু এবং ওটসের গুঁড়ো ১ চামচ ভালোভাবে মিশিয়ে নিন। এই পেস্টটি আপনার মুখ এবং ঘাড়ে সমানভাবে প্রয়োগ করুন। ২০ মিনিট রেখে ধুয়ে ফেলুন।

ব্রণের সমাধানে:

যদি আপনি ঘন ঘন ব্রেকআউট নিয়ে লড়াই করে যাচ্ছেন তবে আপনার স্কিনকেয়ারের রুটিনে আদা যুক্ত করার সময় এসেছে। এর অ্যান্টি-ইনফ্লেমেটরি বৈশিষ্ট্যগুলো সব ধরণের সংক্রমণের বিরুদ্ধে লড়াই করতে পারে এবং আপনার ত্বককে স্বাস্থ্যকর এবং পরিষ্কার করে তুলতে পারে।

যেভাবে ব্যবহার করবেন:

১ চামচ কাঠকয়লা গুঁড়ো, আদার রস আধা চা চামচ, ১ চামচ মধু ও ১ চামচ অ্যালোভেরা জেল মিশিয়ে নিন। সব উপাদান একসঙ্গে মেশান এবং পুরো মুখে লাগান। ১০ থেকে ১৫ মিনিট পর ধুয়ে ফেলুন।

আকর্ষণীয় চুল:

শ্যাম্পু এবং কন্ডিশনার বিজ্ঞাপনে দেখে নিশ্চয় ওইরকম চুল নিয়ে স্বপ্ন দেখেন? তাহলে আদা হতে পারে আপনার পরম বন্ধু।

যেভাবে ব্যবহার করবেন:

আপনার চুল ম্যাসাজ করতে আদা তেল ব্যবহার করুন। তবে আদার তেল সরাসরি ব্যবহার করবেন না। এটি ক্যারিয়ার তেলের সাথে মিশ্রিত করুন এবং তারপরে আপনার চুলে এই তেল মিশ্রণটি ম্যাসেজ করুন। এক ঘন্টা ধরে রাখার পরে, একটি ভাল শ্যাম্পু দিয়ে ধুয়ে ফেলুন।

সুতরাং নারীরা, ত্বক এবং চুলের যত্নের রুটিনে আজই আদা যুক্ত করুন।

সূত্র: হেলথ শটস

Advertisements

Check Also

বিবাহিত নারীদের চিকন কোমরের রহস্য!

বিয়ে একটি সামাজিক ও পারিবারিক বন্ধন। বিয়ের পর প্রতিটি নারীর মাঝেই কিছু পরিবর্তন আসে। তা …